Ads

 ফ্রিল্যান্সিং শব্দটি কয়েক বছর আগেও আমাদের কাছে অপরিচিত একটি শব্দ ছিল। কিন্তু সময় এখন 2022। মানুষের কার্যকলাপের প্ল্যাটফর্মের সাথে সবকিছু বদলে গেছে। অনলাইন আমাদের দৈনন্দিন কাজের জন্য একটি প্ল্যাটফর্ম হয়ে উঠেছে। ছোট থেকে বড় সব ধরনের মানুষ এখন অনলাইন ব্যবহার করে।

 

আর এই  অনলাইন ব্যবহারের এই স্তরটি আমাদেরকে ফ্রিল্যান্সিং এর সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়। ফ্রিল্যান্সিং হলো  ঘরে বসে অনলাইনের সাহায্যে দেশে বা বিদেশে যেকোনো ধরনের কাজ করা। ফ্রিল্যান্সিং শব্দটির সাথে আমরা সবাই পরিচিত। কিন্তু আমরা অনেকেই জানি না কেন ফ্রিল্যান্সিং করতে হবে, কিভাবে নিজের ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার শুরু করবেন। আজ আমরা আলোচনা করব কেন ফ্রিল্যান্সিং করতে হবে, কিভাবে করতে হবে, কত টাকা আয় করতে হবে।


ফ্রিল্যান্সিং করে মাসে কত টাকা ইনকাম করা যায়? Online Earn and Help Center
ফ্রিল্যান্সিং করে মাসে কত টাকা ইনকাম করা যায়? 


কেন ফ্রিল্যান্সিং করবেন?

ফ্রিল্যান্সিং এর সবচেয়ে বড় সুবিধা হল আপনি ঘরে বসে কাজ করতে পারবেন। আমরা ঘরে বসে অনলাইন ব্যবহারের মাধ্যমে যে কাজ করি তাকে ফ্রিল্যান্সিং বলে। ফ্রিল্যান্সিং মানে মুক্ত কাজ।


এর সবচেয়ে বড় সুবিধা হল আপনি যখন খুশি এই কাজটি করতে পারবেন।আপনাকে করতেই হবে এমন কোন বাধ্যবাধকতা নেই।  ধরুন আপনি একটি কোম্পানির জন্য কাজ করেন তাহলে আপনাকে প্রতিদিন সময়মতো অফিস যেতে  হবে, সময়মতো কাজ শেষ করতে হবে এবং কাজ শেষে বাড়ি ফিরতে হবে।

Visit Our Site: Online Earn & Help Center

অনেকের কাছে এভাবে কাজ করা বিরক্তিকর মনে হয়। এমনকি আমি এটা খুব বিরক্তিকর মনে.করি কিন্তু আপনি যদি ফ্রিল্যান্সিং করেন তাহলে আপনি আপনার পছন্দের সময় মতো ঘরে বসে কাজ করতে পারবেন। 


আপনাকে  তখন কোন অফিসে  যেতে হবে না। আপনি ঘরে বসে থেকে কাজ করতে পারবেন । তাই আমি মনে করি আপনি যদি ফ্রিল্যান্সকে আপনার ক্যারিয়ার হিসেবে নেন তাহলে আপনি আপনার জীবনকে সুন্দরভাবে উপভোগ করতে পারবেন।


কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার শুরু করবেন?


আমরা সবাই জানি যে ফ্রিল্যান্সিং মানে ফ্রিল্যান্স কাজ বা অনলাইনে কাজ করে অর্থ উপার্জন করা। কিন্তু আমরা অনেকেই জানি না। কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং শুরু করব। কিভাবে কাজ করব এবং কি ধরনের কাজ করতে হবে।


আপনি যদি মনে  করেন, ফ্রিল্যান্সিং করতে  শুধুমাত্র একটি কম্পিউটার হলোই চলবে এবং অনলাইন সম্পর্কে সহজ কিছু জানলেই আপনি ফ্রিল্যান্সিং করতে পারবেন। তাহলে আপনার ধারণা ভুল। বাইরে কাজ করার চেয়ে ঘরে বসে অর্থ উপার্জন করা সহজ হতে পারে। কিন্তু ঘরে বসে এই কাজ পাওয়া খুবই কঠিন। আপনি যদি মনে করেন যে ফ্রিল্যান্সিং মানে শুধু ঘরে বসে কম্পিউটারে ট্যাপ করা, তাহলে আগে এই ভুল ধারণাটি পরিবর্তন করুন।

একটা কথা মনে রাখবেন, কোন কিছুই সহজ না আর কখনো ও সহজেই টাকা আয় সম্ভব নয়। এর জন্য আপনাকে পরিশ্রম করতে হবে।/


আপনি যদি জীবনে  কিছু করতে না পারেন, কিংবা কিছু করতে না চান  তাহলে আপনার দ্বারা কখন সফল হওয়া সম্ভব নয় । মনে করেন  আপনি একজন সরকারি চাকরি করবেন। এর জন্য আপনাকে কি করতে হবে? প্রথমেই আপনাকে মনযোগ দিয়ে পড়া লেখা করতে হবে, আপনাকে এম এ পাস করতে হবে। চাকরি পাওয়ার জন্য চাকরি পরীক্ষা দিতে হবে। যদি আপনি ভালো ভাবে পরীক্ষা শেষ করেন এবং ভালো রেজাল্ট করেন তাহলেই আপনার চাকরি হবে। আপনি যে চাকরি পেলেন এর জন্য আপনাকে অনেক পরিশ্রম করতে হয়েছে।ঠিক  একইভাবে, অনলাইনে কাজ করতে হলে আপনাকে যেকোন একটা কাজ ভালো ভাবে শিখতে হবে। আপনি যদি যেকোন একটা কাজ শিখে ফেলতে পারেন তাহলে আপনাকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হবে না । একটা  কথা মাথায় রাখবেন কাজ শিখতে হবে। 

 এখন একটা প্রশ্ন করতে পারেন, আমি কি কাজ শিখবো? আজকাল আপনি অনেক ধরনের কাজ দিয়ে শুরু করতে পারেন। অনলাইনে কাজের  অভাব নেই, যদি আপনি কাজ শিখেন এবং মনোযোগ দিয়ে করতে পারেন।

আরো পড়ুনঃ মোবাইল দিয়ে কিভাবে ইনকাম করব?

আপনি লেখালেখি থেকে শুরু করে ওয়েব ডেভেলপিং, গ্রাফিক্স ডিজাইন, ইমেইল মার্কেটিং, ডিজিটাল মার্কেটিং, শিক্ষাদান, অন্যান্য হাজারো জিনিস অনলাইনে করতে পারেন। হ্যাঁ, আপনি বাস্তব জীবনে এই জিনিসগুলি অফলাইনে করতে পারেন। তাহলে এটাকে ফ্রিল্যান্সিং বলা হবে না। আপনি যখন অনলাইনে কিছু করেন, তাহলে এটাকে ফ্রিল্যান্সিং বলে। এখন আপনার প্রয়োজন যেকোনো বিষয়ে কাজ শিখেন। তাহলে আপনি ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা আয় করতে পারবেন।


 আপনাদের কিছু কাজের কথা বলছি, যেগুলি একটি শিখতে পারলে আপনাকে কখনো ও পিছনে ফিরে তাকাতে হবে না।


  • ওয়েব ডিজাইন
  • ওয়েব ডেভেলপিং
  • গ্রাফিক্স ডিজাইন
  • ভিডিও এডিটিং
  • ডিজিটাল মার্কেটিং
  • এপ্স ডেভেলপিং 

এই ক্যাটাগরির বেশিরভাগ কাজ অনলাইনে সম্পন্ন হয়। এছাড়াও অনেক ধরনের কাজ আছে যেগুলো আপনি শিখতে পারবেন। 


কাজ গুলো পাব কোথায়?

Fiverr, Upwork, Freelancer.com এর মতো হাজার হাজার অনলাইন মার্কেটপ্লেস রয়েছে যেখানে আপনি আপনার দক্ষতা প্রয়োগ করে কাজ করতে পারেন। এই ধরনের মার্কেটপ্লেসে অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে সময় লাগে 2-3 মিনিট, কিন্তু আপনি যদি কাজটি না জানেন তবে আপনি একটি কাজ খুঁজে পাবেন না আর আপনাকে কেউ কাজ দিবে না , তাই কাজ শিখে ঝাঁপিয়ে পড়ুন।


একজন ফ্রিল্যান্সার কত টাকা আয় করে?


ফ্রিল্যান্সিং করে কত টাকা আয় করা যায় এই প্রশ্নটি অনেকেই করেন। এই প্রশ্নের উত্তর নির্ভর করবে আপনি কত টাকা আয় করতে চান  তার উপর। অনলাইন হল এমন একটি জায়গা যেখানে সারা বিশ্বের মানুষ একত্রিত হয়। আপনি কোন দেশে বাস করেন তা বিবেচ্য নয়।আপনি কাজে কতটা দক্ষ আছেন সেটাই মূল বিষয়। আপনি আপনার দক্ষতা অনুযায়ী অফলাইনে কাজ করার চেয়ে অনলাইনে কাজ করে বেশি আয় করতে পারেন। ধরুন বাংলাদেশে আপনি একটি অফলাইন কোম্পানির লোগো ডিজাইন করেন। যেহেতু প্রতিষ্ঠানটি বাংলাদেশের, তাই আপনি বাংলাদেশের হারে এই কাজটি করার জন্য অর্থ পাবেন। কিন্তু অনলাইনে যুক্তরাষ্ট্রের কোনো প্রতিষ্ঠানের লোগো ডিজাইন করলে বেশি টাকা পাবেন। তাই চাকরি যাই হোক না কেন, আপনি অনলাইনে একটু বেশি আয় করতে পারবেন।


আরো পড়ুন ঃ



1 Comments

Post a Comment

Previous Post Next Post

Ads

Ads